বারাসতের তৃণমূল সভাপতি কি ইডির নজরে, তার জন্যই কি কাকলি ঘোষ দস্তিদার?

চঞ্চল পালঃ তৃণমূলের বারাসত সাংগঠনিক জেলার সভাপতি পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল বারাসাতের পুরপ্রধান অশনি মুখার্জিকে। নতুন সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বারাসাতের সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে। অকস্মাৎ বারাসাতের তৃনমূলের জেলা সভাপতি পরিবর্তনের ঘটনায় রাজনৈতিক মহলে তীব্র আলোড়নের সৃষ্টি হয়েছে।

বারাসাত জুড়ে আলোচনা হচ্ছে, বারাসাতের জনৈক বস্ত্র ব্যবসায়ী ইডির নজরদারিতে, আর ওই বস্ত্র ব্যবসায়ীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল বারাসাতের তৃনমূলের সভাপতি অশনি মুখার্জির। সেই কারণেই কি তাকে তরিঘরি সরিয়ে দেওয়া হল দলীয় সভাপতির পদ থেকে। এ নিয়ে বিস্তর জল ঘোলা শুরু হয়েছে বারাসাত তৃনমূলের জেলার অন্দরে।

এই বিষয়ে অশনি মুখার্জি বলেন, “দলের সিদ্ধান্ত চুরান্ত, দল যা চাইবে তাই হবে, পাশাপাশি দলীয় শৃঙ্খলাপরায়ন কর্মী হিসাবে আগামী দিনে কাকলি দি যা বলবেন, যেমন দায়িত্ব দেবেন, তা শুনে কাজ করে তৃণমূল কংগ্রেস কে সমৃদ্ধ করাই আমার কাজ”, রাজনৈতিক মহলে যে গুঞ্জন হচ্ছে তাতে গুরুত্ব দিতে রাজি নন।

তিনি আরও বলেন, “নিন্দুকদের কাজ হল এইসব করা, রাজনীতির মানুষরা করে না”, প্রতিক্রিয়া প্রাক্তন বারাসত সাংগঠনিক জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা বারাসত পুরসভার পুরপ্রধান অশনি মুখার্জির।।

Related posts

Leave a Comment