বারাসাত আদালতে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের কালোবাজারি: আন্দোলনে বিজেপির আইনজীবী সেল

ধৃতরাষ্ট্র দত্তঃ বারাসাত আদালতে দীর্ঘদিন ধরে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের কালোবাজারি চলছে রমরমিয়ে। ফলে সঙ্কট দেখা দিয়েছে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের। দশ টাকার নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প একেবারে অমিল। ভেন্ডারদের কাছে পাওয়া যাচ্ছে না দশ টাকার নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প। অথচ দশ টাকার জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প কালোবাজারি হচ্ছে ১৫০-২০০ টাকায়। জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের কালোবাজারি হওয়ার ঘটনার কথা জেনেও প্রসাশন নির্বিকার। ফলে বিচারপ্রার্থীদের ঠকতে ও ভুগতে হচ্ছে।

বারাসাত আদালতে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের কালোবাজারি ও কৃত্রিম সঙ্কট রুখতে আন্দোলনে নেমেছে বারাসাত আদালতের বিজেপি আইনজীবী সেল।

বারাসাত জেলা বিজেপির সম্পাদক তথা উত্তর ২৪ জেলা বিজেপি আইনজীবী সেলের আহ্বায়ক বরিষ্ঠ আইনজীবী দুলাল সরকার জানিয়েছেন, “দীর্ঘদিন ধরে প্রসাশনের নাকের ডগায় রমরমিয়ে কালোবাজারি চলছে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প। ফলে ভুগতে হচ্ছে বিচারপ্রার্থীদের। তাই ২৫ নভেম্বর উত্তর ২৪ পরগনা জেলা-শাসককে বিজেপি আইনজীবী সেলের পক্ষ থেকে ডেপুটেশন দেওয়া হবে। তাতে যদি সমস্যার সমাধান না হয় তাহলে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে”।

খোদ আদালত চত্বরে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের কালোবাজারি হওয়ায় উৎকণ্ঠিত বিচারপ্রার্থীরা।বারাসাত আদালতের মতো একইভাবে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের কালোবাজারি চলছে ব্যারাকপুর, হাওড়া, বনগাঁ, বসিরহাট, চুঁচুড়া, চন্দননগর, আলিপুর, কল্যানী, কৃষ্ণনগর আদালতেও।

নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের কৃত্রিম সঙ্কট ও কালোবাজারির ঘটনায় তীব্র আলোড়নের সৃষ্টি হয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।।

Related posts

Leave a Comment